11:02 pm, Saturday, 24 February 2024

শোকাবহ আগস্টে কালো ব্যাজ বিতরণ করেন অ্যাডভোকেট নুরজাহান।

  • Reporter Name
  • Update Time : 01:21:22 pm, Tuesday, 1 August 2023
  • 16 Time View

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: পারভেজ আহম্মেদ

 

শোকের মাস আগস্ট শুরু আজ। জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে আজ পহেলা আগস্ট থেকে আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত মাসব্যাপী কালো ব্যাজ পরিধান করিয়ে দিচ্ছেন অ্যাডভোকেট নুরজাহান সভাপতি মহিলা আওয়ামী লীগ সোনারগাঁ উপজেলা, সদস্য সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগ

স্বাধীনওতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাতবার্ষিকীতে যথাযথ মর্যাদায় ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে সারাদেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত হবে।

শোকের মাসের কর্মসূচির অংশ শম্ভুপুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অ্যাডভোকেট নুরজাহানের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্পটে সাধারণ মানুষের মধ্যে কালো ব্যাজ পরিয়ে দেয়

এসময় তিনি বলেন আজ থেকেই মাসজুড়ে জাতি স্মরণ করবে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। মহান এই নেতার প্রতি হৃদয় নিংড়ানো শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। ঘৃণা, ধিক্কার জানানো হবে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যাকারী ও একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের।

জাতির কলঙ্কিত অধ্যায়
১৯৭৫ সালের আগস্টের মধ্যভাগে নৃশংসভাবে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ইতিহাসের এই মহানায়কের বুকের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল শ্যামল বাংলার মাটি।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে সপরিবারে জাতির পিতা হত্যার সঙ্গে একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের কূট ষড়যন্ত্র আর হামলার শিকার হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের মহান আদর্শ এবং চেতনাও। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ দিয়ে এর বিচারের পথ রুদ্ধ করে আরেক কলঙ্কিত ইতিহাস রচনা করা হয়েছিল।

১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর সেই অধ্যাদেশ বাতিল ও বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শুরু হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া ও নানা কূটকৌশলের জাল ছিন্ন করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের চূড়ান্ত রায় শেষে ২০১০ সালের ২৭ জানুয়ারি রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঁচ ঘাতক- সৈয়দ ফারুক রহমান, বজলুল হুদা, একেএম মহিউদ্দিন আহমেদ, সুলতান শাহরিয়ার রশিদ খান ও মুহিউদ্দিন আহমেদের ফাঁসি কার্যকরের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করা হয়।

২০২০ সালের ১১ এপ্রিল মধ্যরাতে দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর গ্রেপ্তার হওয়া বঙ্গবন্ধুর আরেক আত্মস্বীকৃত খুনি ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকর করা হয় একই কারাগারে।

পুরো জাতি এখনও প্রতীক্ষার প্রহর গুনছে বঙ্গবন্ধুর,
আরো উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য জসিম উদ্দিন, মোঃ আবু হারেজ সাবেক সভাপতি সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগ, মোঃকবির হোসেন সিনিয়র সহ-সভাপতি ৪নং ওয়ার্ড শম্ভুপুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, সৈয়দ আহমদ,মোঃ ইব্রাহীম মিয়া ,আনিসুর রহমান অনিস,মনির হোসেন ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি আওয়ামী যুবলীগ শম্ভুপুরা ইউনিয়ন,নুরহোসেন, রমজান প্রমুখ।

 

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

Popular Post

সোনারগাঁওয়ে শীতার্ত ও অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন বজলুর রহমান সিআইপি।

শোকাবহ আগস্টে কালো ব্যাজ বিতরণ করেন অ্যাডভোকেট নুরজাহান।

Update Time : 01:21:22 pm, Tuesday, 1 August 2023

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: পারভেজ আহম্মেদ

 

শোকের মাস আগস্ট শুরু আজ। জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে আজ পহেলা আগস্ট থেকে আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত মাসব্যাপী কালো ব্যাজ পরিধান করিয়ে দিচ্ছেন অ্যাডভোকেট নুরজাহান সভাপতি মহিলা আওয়ামী লীগ সোনারগাঁ উপজেলা, সদস্য সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগ

স্বাধীনওতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাতবার্ষিকীতে যথাযথ মর্যাদায় ও ভাবগম্ভীর পরিবেশে সারাদেশে জাতীয় শোক দিবস পালিত হবে।

শোকের মাসের কর্মসূচির অংশ শম্ভুপুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অ্যাডভোকেট নুরজাহানের নেতৃত্বে বিভিন্ন স্পটে সাধারণ মানুষের মধ্যে কালো ব্যাজ পরিয়ে দেয়

এসময় তিনি বলেন আজ থেকেই মাসজুড়ে জাতি স্মরণ করবে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। মহান এই নেতার প্রতি হৃদয় নিংড়ানো শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। ঘৃণা, ধিক্কার জানানো হবে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যাকারী ও একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের।

জাতির কলঙ্কিত অধ্যায়
১৯৭৫ সালের আগস্টের মধ্যভাগে নৃশংসভাবে সপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। ইতিহাসের এই মহানায়কের বুকের রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল শ্যামল বাংলার মাটি।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে সপরিবারে জাতির পিতা হত্যার সঙ্গে একাত্তরের পরাজিত শত্রুদের কূট ষড়যন্ত্র আর হামলার শিকার হয়েছিল মুক্তিযুদ্ধের মহান আদর্শ এবং চেতনাও। বঙ্গবন্ধু হত্যার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ দিয়ে এর বিচারের পথ রুদ্ধ করে আরেক কলঙ্কিত ইতিহাস রচনা করা হয়েছিল।

১৯৯৬ সালে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর সেই অধ্যাদেশ বাতিল ও বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শুরু হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া ও নানা কূটকৌশলের জাল ছিন্ন করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের চূড়ান্ত রায় শেষে ২০১০ সালের ২৭ জানুয়ারি রাতে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঁচ ঘাতক- সৈয়দ ফারুক রহমান, বজলুল হুদা, একেএম মহিউদ্দিন আহমেদ, সুলতান শাহরিয়ার রশিদ খান ও মুহিউদ্দিন আহমেদের ফাঁসি কার্যকরের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করা হয়।

২০২০ সালের ১১ এপ্রিল মধ্যরাতে দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর গ্রেপ্তার হওয়া বঙ্গবন্ধুর আরেক আত্মস্বীকৃত খুনি ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকর করা হয় একই কারাগারে।

পুরো জাতি এখনও প্রতীক্ষার প্রহর গুনছে বঙ্গবন্ধুর,
আরো উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য জসিম উদ্দিন, মোঃ আবু হারেজ সাবেক সভাপতি সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগ, মোঃকবির হোসেন সিনিয়র সহ-সভাপতি ৪নং ওয়ার্ড শম্ভুপুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, সৈয়দ আহমদ,মোঃ ইব্রাহীম মিয়া ,আনিসুর রহমান অনিস,মনির হোসেন ৪নং ওয়ার্ড সভাপতি আওয়ামী যুবলীগ শম্ভুপুরা ইউনিয়ন,নুরহোসেন, রমজান প্রমুখ।