June 17, 2024, 2:37 pm
Headline :
সোনারগাঁয়ে  এক যুবককে  কুপিয়ে হত্যা। নারায়ণগঞ্জ বন্দরে ভূমিসেবা সপ্তাহ উদ্বোধন ও বর্ণাঢ্য র‍্যালি। প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন আব্দুল হামিদ। মাই টিভির ১৫ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল। সোনারগাঁয়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে ঈদ সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন মিছির আলী ফাউন্ডেশন। সোনারগাঁওয়ে গণপিটুনিতে নিহত ডাকাতদের পরিচয় মিলেছে।  ছেলে হারা মায়ের আর্তনাদ আজিজ গংরা আমার ছেলেকে মেরে ফেলেছে,আমি তাদের ফাঁসি চাই। নারায়ণগঞ্জ বন্দরে ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ জাহিদুল নামে এক যুবক আটক।  ফেইসবুক ইনস্টাগ্রামের এর সার্ভার ডাউন সারা বাংলাদেশে। নারায়ণগঞ্জের যেসব এলাকায় ১৬ ঘণ্টা গ্যাস থাকবে না।

করোনায় এবছরে ও মহা অষ্টমী স্নান উৎসব করা হলো না সনাতন ধর্মালম্বীদের ।

শেয়ার করুন

               মুক্তির কথা নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

করোনা ভাইরাসের কারণে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে এবছরেও পূর্ণার্থীদের সমাগম বন্ধ ঘোষণা করেছেন জেলা প্রশাসন।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রতিটি ঘাটে ঘাটে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে, এছাড়াও প্রতিটি প্রবেশদ্বারে কড়া পাহারায় রয়েছে পুলিশ, যার ফলে স্নানের উদ্দেশ্যে কোন পুণ্যার্থী ঘাটে প্রবেশ করতে পারছেন না।
সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব মহাতীর্থ লাঙ্গলবন্দ স্নান। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সোমবার (১৯ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জ পূজা উদযাপন ও লাঙ্গলবন্দ স্নান উদযাপন কমিটির সঙ্গে ভার্চুয়াল সভা করে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রসাশক মোস্তাইন বিল্লাহ লাঙ্গলবন্দ স্নান স্থগিত করেন।

প্রতি বছর হিন্দু সম্প্রদায়ের পাপ মোচনের বাসনা নিয়ে বন্দর উপজেলার পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদে এ স্নান উৎসবে অংশগ্রহণ করেন দেশ-বিদেশের কয়েক লাখ পুণ্যার্থী।
নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার বলেন, গত বছরও একই কারণে স্থগিত ছিল এই উৎসব। নিয়ম অনুযায়ী পূজা ব্যতীত অন্যান্য কার্যক্রম বন্ধ ছিল। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবারও কেন্দ্রীয়ভাবে বৃহৎ আকারে স্নান উৎসব না করার বিষয়ে নির্দেশনা রয়েছে।
তিনি বলেন, সোমবার সন্ধ্যা সাতটা ২৬ মিনিট থেকে পূণ্যতিথি শুরু হবে। মঙ্গলবার একই সময়ে শেষ হবে এই তিথি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে রীতি অনুযায়ী পূজা হলেও লাখো মানুষের অংশগ্রহণে যে স্নান উৎসব হতো তা স্থগিত রাখা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহি অফিসার শুল্কা সরকার বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী গত বছরের ন্যায় এ বছরও করুণা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে সান উৎসব স্থগিত করা হয়েছে আমি গতকাল রাতেও এসেছিলাম আজ সকাল ছয়টা থেকে এখানে আছি আমরা পুণ্যার্থীদের বুঝাতে সক্ষম হয়েছি যার ফলে এখন কোন পণ্য এখানে নেই। এখানে পুলিশ, আনসার ও গ্রাম পুলিশের সদস্যরা কাজ করছে। আমি ও এসিল্যান্ড এখানে উপস্থিত আছি, জরুরী প্রয়োজন ও রোগী ছাড়া অন্য কোন গাড়ি এখানে চলাচল সম্পূর্ণ নিষেধ করা হয়েছে এবং স্থানীয় কিছু লোকজন ছাড়া এখানে দূর-দূরান্ত থেকে আগত কোন পুণ্যার্থী নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Our Like Page